• শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:২৭ অপরাহ্ন
Headline
আম্বিয়া খাতুন মেমোরিয়াল স্কুল বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ইউনিক এডুকেয়ার হাইস্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া মোনাজাতের মাধ‌্যমে শেষ হলো দ্বিতীয় পর্বের বিশ্ব ইজতেমা ক্ষমতার অপব্যবহার করে দীর্ঘ দিন যাবত একই কর্মস্থলে গাজীপুর সদরের শিক্ষা অফিসার শামীম আহম্মেদ গাজীপুর সাংবাদিক ঐক্য ফোরামের আহবায়ক কমিটি গঠন গাজীপুর কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশনের হাজী মুছা সভাপতি, ইসমাঈল মাস্টার সম্পাদক নির্বাচিত এই বিজয় জনগণের বিজয়: শেখ হাসিনা অবাধ-স্বচ্ছ ও উৎসবমুখর নির্বাচন হয়েছে, জানালেন বিদেশি পর্যবেক্ষকরা বিলুপ্তির পথে তাঁতশিল্প, হুমকির মুখে ব্যবসায়ীরা এই নির্বাচন দেশের গণতান্ত্রিক অভিযাত্রায় মাইলফলক হয়ে থাকবে: কাদের

নির্বাচনকে সামনে রেখে সাইবার অপরাধ বেড়েছে

রিপোর্টারের নাম / ২৬ টাইম:
আপডেট: মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক :
আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সাইবার ইউনিট বেশিরভাগই আসন্ন জাতীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গুজব ও অপপ্রচার ঠেকাতে ব্যস্ত থাকায় সাইবার অপরাধীরা অপতৎপরতা চালাতে পারে বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সূত্র। গুজব মোকাবেলার পাশাপাশি নির্বাচনের আগে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাইবার ইউনিটের সদস্যদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এর ফলে সাইবার অপরাধের বিরুদ্ধে অভিযান অনেকাংশে কমেছে এবং সাইবার অপরাধ বেড়েছে বলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সূত্রে জানা গেছে। সাইবার অপরাধের মধ্যে রয়েছে জঙ্গিবাদ এবং লোভনীয় চাকরির অফার, অনলাইন লোন, লাইভ স্ট্রিমিং চ্যাট, পুরস্কার এবং অন্যান্য। বেসরকারি চাকরিজীবী জাহাঙ্গীর আলম ২ ডিসেম্বর সকাল ১০টা ৫৮ মিনিটে ০১৯৯২-৩০৯৬৮৪ নম্বর থেকে একটি মেসেজ পান। মেসেজে লেখা, “আপনার সিভি সিলেক্ট করা হয়েছে। বেতন হিসেবে আপনাকে প্রতিদিন ২,৯০০ টাকা দেওয়া হবে। বিস্তারিত জানতে, আপনাকে ০১৩২৩-০০১৮২১ নম্বরে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।” অপরাধ তদন্ত বিভাগের বিশেষ সুপার রেজাউল মাসুদ বলেন, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে একটি চক্র বিভিন্ন ব্যক্তিকে এ ধরনের বার্তা পাঠাচ্ছে। অফিসার বলেন, ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজন লোক এই চক্রের শিকার হয়ে প্রতারিত হচ্ছে। অপরাধীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি। ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, নির্বাচন সংক্রান্ত গুজব ও অপপ্রচার ঠেকাতে সাইবার টহল বাড়ানো হয়েছে। যাইহোক, তারা আগামী সাধারণ নির্বাচনের আগে অন্যান্য সাইবার ক্রাইম পরীক্ষা করার দিকে মনোযোগ দিতে পারে না। পুলিশের অ্যান্টি টেরোরিজম ইউনিটের (এটিইউ) একজন মহিলা পুলিশ সুপার বলেছেন যে তিনিও তার তিনটি সিমে এই জাতীয় বার্তা পেয়েছেন। তিনি বলেন যে তারা দলটিকে চিহ্নিত করেছে কিন্তু লোকবলের অভাবে অভিযান চালাতে পারেনি কারণ বেশিরভাগ সদস্য আগামী নির্বাচনের আগে গুজব ছড়ানো বন্ধ করতে ব্যস্ত ছিলেন। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (ডিবি সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম, দক্ষিণ) সাইফুর রহমান আজাদ বলেন, তিনিও এমন বার্তা পেয়েছেন যেখানে তাকে দৈনিক ২,০০০-১০,০০০ টাকা বেতনে চাকরির প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ২০১৭ সাল থেকে ওপেন-সোর্স ইন্টেলিজেন্স (ওএসআইএনটি) পদ্ধতি ব্যবহার করে সর্বজনীন তথ্য সংগ্রহ করে এবং সেই অনুযায়ী কাজ করে। এই পদ্ধতির মাধ্যমে জাতীয় টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টার সাইবারস্পেস মনিটরিং কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কনটেন্ট ব্লক বা ফিল্টার করে। সংস্থাটির সর্বশেষ ত্রৈমাসিক প্রতিবেদন অনুসারে, রাষ্ট্রবিরোধী কনটেন্ট ঠেকাতে তারা ব্লকিং ও ফিল্টারিং পদ্ধতির ব্যবহার করে। কিন্তু অন্য সাইবার অপরাধ ক্ষেত্রে শুধু মাত্র অভিযোগ করলেই ব্লক বা ফিল্টারিং করে থাকে। তবে দেশের বাইরে থেকে পোস্ট করা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের কোনো কনটেন্ট সরিয়ে দিতে বা ব্লক করতে পারে না আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পুলিশের সাইবার ও বিশেষ অপরাধ বিভাগ গুজব ছড়ানোর অপরাধে গত তিন মাসেই অন্তত ৭০০ পেজ, আইডি ও গ্রুপ বন্ধ করেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো নিউজ
https://slotbet.online/